বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১
Logo
আপনি বেঁচে থাকবেন মানুষের ভালোবাসায়

আপনি বেঁচে থাকবেন মানুষের ভালোবাসায়

মৃত্যু অনিবার্য। তবু মৃত্যু নিয়ে আমাদের কত বিচিত্র রকমের ভাবনা, কত বিচিত্র রকমের অনুভব-অনুভূতি! মৃত্যু নিয়ে আমাদের কল্পনারও কোনো শেষ নেই।


সব ভাবনা-চিন্তা-কল্পনা ছাপিয়ে মৃত্যু নিয়ে এটিই বোধ হয় জীবিত মানুষের কাছে সবচেয়ে বেশি প্রিয় ভাষণ : ‘মরিতে চাহি না আমি সুন্দর ভুবনে, মানবের মাঝে আমি বাঁচিবারে চাই’।


মরণশীল মানবের এই আকুতি কোন ভাবেই চিরন্তন সেই অমোঘ ও অনিবার্যতাকে স্পর্শ করতে পারে না। অন্তত শারীরিকভাবে তো কোনোক্রমেই নয়। তবে, শারীরিক মৃত্যুর পরেও অনন্তকাল মানুষ ভবিষ্যৎ মানবের মাঝে বেঁচে থাকতে পারেন- কেউ কেউ বেঁচে থাকেন।


বেঁচে থাকেন তার কর্মে, বেঁচে থাকেন তার সৃজনশীলতার নানা বর্ণ-গন্ধ-গানে। বেঁচে থাকেন তার চিন্তা ও দর্শনের মাধ্যমে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বাহিত হওয়ার মধ্য দিয়ে। শেষ পর্যন্ত কেউ কেউ এমনি করেই মানবের মাঝে বেঁচে থাকেন।


এখনো অনেকেই আমাদের মাঝে বেঁচে আছেন, শারীরিক ভাবে মরণের পরেও তারা অমরত্ব লাভ করে আছেন। তারা বেঁচে আছেন তাদের কর্ম, দর্শন ও সৃজনশীলতার মধ্য দিয়ে। আমাদের মাঝে আলো ছড়িয়ে- আমাদের আলোকিত করে। আমরা জীবিতরা তাদেরকে ভুলতে পারিনি। জীবন যাপনের নানা অনুষঙ্গে আমরা তাদের স্মরণ করি। তারা মৃত্যুঞ্জয়ী। ‘এমন এক দৃঢ় ব্যক্তিত্বকে হারিয়ে আমরা আমাদের সম্মুখে ব্যাপক এক শূন্যতাকে অনুভব করছি।


সেই শূন্যতা আমাদেরকে হতাশ করছে, তাই আজ তাকে হারিয়ে অনেকেই কাঁদছেন।’ কোন কোন মৃত্যু ‘মৃত্যুঞ্জয়ী’ হলেও তা আমাদের স্বাভাবিক চলার গতিকে ক্ষণিকের জন্য হলেও স্তব্ধ করে দেয়। কোন কোন মৃত্যু আমাদেরকে থমকে দেয়, আমাদের ভাবিয়ে তুলে।


কোন কোন মৃত্যু আমাদেরকে ভাবনার অথৈ পাথারে ভাসিয়ে দেয়। কোন কোন মৃত্যু আমাদের সম্মুখের সহস্র দৃশ্যমানতাকে কেমন যেন শূন্যও করে তোলে। কোন কোন মৃত্যু এক অনির্বচনীয় বেদনায় আপ্লুত ও আচ্ছন্ন করে রাখে দীর্ঘ সময় ধরে। মৃত্যুর এই বেদনা অনিঃশেষ। মৃত্যুর এই অনিঃশেষ বেদনা তখনই হৃদয়কে আরো বেশি আচ্ছন্ন করে যখন সেই মৃত্যু হয় কোন কর্মঠ, স্বপ্নবাজ এবং মানবকল্যাণে নিবেদিত দূরদর্শী চিন্তকের।


শুধু চিন্তাই নয়- কর্মের মাধ্যমে যিনি তার চিন্তাকে মানবকল্যাণের নিমিত্তে প্রয়োগের জন্য সর্বদা সচেষ্ট। তেমনই একজন দূরদর্শী, সৃজনশীল, কঠোর ব্যক্তিত্বের ধারক ছিলেন দৈনিক নওয়াপাড়ার সদ্য প্রয়াত প্রকাশক-সম্পাদক আসলাম হোসেন।


আপনি ছিলেন একজন ক্যারিশম্যাটিক জাদুকর যেন। যে কোন পরিকল্পনা ব্যক্তিত্বের দাপুটে কারিশমায় কার্যকর করতে সক্ষম এমন মানুষের সহসা অনুপস্থিতিই যেখানে আমাদের ব্যথিত করে- মৃত্যু সেখানে আমাদেরকে শোকে মূহ্যমান করবে এটাই স্বাভাবিক। মৃত্যু উপরে ব্যক্ত সবগুলো বাক্যের সত্যতা নিয়ে আমাদের সম্মুখে কী রূঢ়ভাবে দন্ডায়মান তা গত কয়দিনে আমরা সকলেই কম-বেশি উপলব্ধি করেছি। কোন সংগ্রামেই যিনি পরাজিত হননি। অনেকের মধ্যেই তার মত সাহসের খুবই অভাব আছে।


তাই আজ প্রগাঢ় শূন্যতা বুকে নিয়ে দ্যার্থহীন কন্ঠে বলতে চাই, পরম পূজনীয়, আপনি বেছে থাকবেন মানুষের মাঝে। অনন্তকাল বেঁচে থাকবেন আপনার কর্মে ও চেতনায়। আপনার রেখে যাওয়া স্বপ্নের ঝান্ডা হাতে আমরা এগিয়ে যাবো আপনার স্মৃতির প্রেরণায়।

সংযুক্ত থাকুন