শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০
Logo
আশাশুনিতে তুচ্ছ ঘটনায় থানা হাজতে সাংবাদিক মাসুদ

আশাশুনিতে তুচ্ছ ঘটনায় থানা হাজতে সাংবাদিক মাসুদ

আশাশুনিতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাংবাদিক মাসুদ কে থানা হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। তিনি আশাশুনি প্রেসক্লাবের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও আশাশুনি সরকারি কলেজের প্রভাষক। গত শুক্রবার সকাল ১১টায় মাসুদ পেশাগত দায়িত্ব পালন শেষে চান্দুলিয়া থেকে আশাশুনিতে ফেরার পথে শ্রীউলায় এসে শ্রীউলা গ্রামের জাকির হোসেনের নবম শ্রেণিতে পড়–য়া মেয়েকে মূলসড়কে ওঠার পথ জিজ্ঞাসা করে। মেয়েটি সাংবাদিককে বলে ‘পারলে দেখে নেন, মেয়ে দেখলে কথা বলা লাগে? এরপরই মেয়েটি তার বাবাকে ফোন দিয়ে জানালে তিনি মাসুদের পথরোধ করেন। কোন কিছু বলার আগেই মেয়েটির বাবা জাকির ও তার লোকজন সাংবাদিককে মারপিট করে তার মোটরসাইকেল ও মোবাইল কেড়ে নিয়ে আটকে রাখে। তার মেয়েকে ইভটিজিং করা হয়েছে বলে পুলিশে খবর দেয়। এরপর এসআই মামুন তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। এ ঘটনাটি জানাজানি হলে সাতক্ষীরা ও আশাশুনির সাংবাদিক এবং স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ বিষয়টি নিয়ে মেয়েটির অভিভাবককে সুষ্ঠু মিমাংসার ব্যবস্থা করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন। একপর্যায়ে অভিভাবকরা রাজী হয়ে থানার ভেতরে গেলে ওসি তদন্ত তাদের বলেন ‘এসব নারী নির্যাতনের ঘটনা মিমাংসাযোগ্য নয়। বাদী মামলা না করলেও পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করবে’। এরপর তিনি মেয়েটির পক্ষে এজাহারে স্বাক্ষর করিয়ে নেন। এ ঘটনায় সাংবাদিক সমাজ হতবাক হয়ে পড়েছেন। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মাসুদকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।

সংযুক্ত থাকুন