বুধবার, ১২ মে ২০২১
Logo
ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে শক্ত অবস্থানে পাকিস্তান

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে শক্ত অবস্থানে পাকিস্তান

শান মাসুদের ব্যাটে ভর করে ইংল্যান্ডের সাথে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে সিরিজের উদ্বোধনী টেস্টের দ্বিতীয় দিনে শক্ত অবস্থানে পাকিস্তান।   ক্যারিয়ার সেরা ১৫৬ রানের ইনিংসটি খেলতে মাসুদ প্রায় আট ঘন্টা ব্যাটিং করেছেন। ১৫৬ রানের ইনিংসটি করতে তিনি ৩১১ টি বল মোকাবিলা করেছেন। মেরেছেন ১৮ টি চার ও ২ টি ছক্কা। টেস্টে টানা তিন ইনিংসে সেঞ্চুরি করা এই ওপেনারের এটিই সর্বোচ্চ রান। এর আগে গত বছর শ্রীলঙ্কার  বিপক্ষে করাচিতে করা ১৩৫ রানই ছিল তার সর্বোচ্চ ।  
ছবিঃ সেঞ্চুরির পর মাসুদ
  বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) ২ উইকেটে ১৩৯ রান নিয়ে দিন শুরু করা পাকিস্তান শুরুতেই হারায় দলের তারকা ব্যাটসম্যান বাবর আজমকে। আগের দিন ৬৯ রান করা বাবর নতুন কোন রান যোগ না করেই জেমস অ্যান্ডারসনের বলে কট বিহাইন্ড হয়ে আউট হয়ে যান হন।   আবহাওয়া মেঘাচ্ছন্ন থাকায় পিচের কন্ডিশন অনেকটা বোলারদের পক্ষে ছিল। সেই সু্যোগে সফরকারী ব্যাটসম্যানদের কঠিন পরীক্ষার মুখে ফেলেন অ্যান্ডারসন ও স্টুয়ার্ট ব্রড।   আসাদ শফিক মাত্র ৭ রানে এবং মোহাম্মদ রিজওয়ান ৯ রানে আউট হয়ে যান। দিনের শুরুতে দ্রুত ৩ উইকেট হারিয়ে চাপের মুখে পড়ে সফরকারীরা। প্রশ্ন দেখা দেয় যে ঠিক কত রানের মধ্যে শেষ হবে পাকিস্তানি ইনিংস!   এদিকে আগের দিন অপরাজিত থাকা মাসুদ দিনের শুরু থেকেই বেশ আত্মবিশ্বাসী হয়ে খেলতে থাকেন। তার সঙ্গী হন শাদাব খান। ইংলিশ বোলারদের বেশ দারুণভাবে সামলে খেলতে থাকা শাদাব এবং মাসুদ ১০৫ রানের  একটি জুটি গড়ে তোলেন। মাসুদকে দারুণভাবে সঙ্গ দেওয়া শাদাব ৭৬ বলে ৪৫ রান করে  ডম বেসকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিডঅফে ধরা খান।   শাদাব ফিরে যাওয়ার পর পাকিস্তানের শেষ সাত ব্যাটসম্যানের আর কেউই দুই অঙ্কের ঘরে যেতে পারেননি। শেষ দিকে দ্রুত রান তোলার চেষ্টায় থাকা মাসুদকে এলবিডব্লিউ করেন ব্রড। পাকিস্তানের ইনিংস গিয়ে থামে ৩২৬ রানে।   জফ্রা আর্চার ও ব্রড তিনটি করে উইকেট নেন। ওকস নেন দু'টি উইকেট।   দ্বিতীয় অধিবেশনের শুরুতে প্রথম ওভারেই এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলে ররি বার্নসকে ফেরান শাহিন শাহ আফ্রিদি। মাত্র চার রান করে সাজঘরে ফেরেন বার্নস।   এরপর মোহাম্মদ আব্বাসের দারুণ দুই ডেলিভারিতে সাজঘরে ফেরেন ডম সিবলি ও বেন স্টোকস। দ্রুত ভেতরে ঢোকা বলে নিজের ৮ রানের মাথায় এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে আউট হয়ে যান সিবলি। এদিকে বেন স্টোকস সুইং সামলাতে গিয়ে মিসটাইম করলে বল গিয়ে সজোরে আঘাত হানে স্ট্যাম্পে। শূন্য রানে আউট হয়ে যান আইসিসি টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ এই অলরাউন্ডার। মাত্র ১২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপের মুখে পড়ে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।   অলি পোপ এবং জো রুট একটি বড় পার্টনারশীপের ইঙ্গিত দিলেও ইয়াসির শাহর বলে কট বিহাইন্ড হয়ে ফেরেন ইংলিশ অধিনায়ক, রুট। তিনি অবশ্য শূন্য রানে আউট ঘোষিত হবার পর রিভিউ নিয়ে বেঁচে গিয়েছিলেন।   পোপ শুরু থেকেই বেশ আত্মবিশ্বাসী হয়ে সামলিয়েছেন সফরকারী বোলারদের। তবে দারুণ কিছু শট খেললেও বেশ কয়েকবার ঝুঁকিও নিয়েছেন তরুণ এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান।   দিন শেষে স্বাগতিকরা ৪ উইকেট হারিয়ে ৯২ রান করেছে।  পোপ ৪৬ রানে এবং বাটলার ১৫ রানে অপরাজিত আছেন।

সংযুক্ত থাকুন