মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১
Logo
কেশবপুরে জামান-রিপন ব্রিক্স’র  অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

কেশবপুরে জামান-রিপন ব্রিক্স’র অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

কেশবপুরে অবৈধ দুটি ইট ভাটা উচ্ছেদের মধ্য দিয়ে এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবী পুরুন হয়েছে।

 

সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে রবিবার সকালে স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগীতায় পরিবেশ অধিদপ্তরে (ঢাকা) এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রোজিনা আক্তার ও কেশবপুর উপজেলা সহকারী (ভুমি) কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ইরুফা সুলতানা ঐ দুই ইট ভাটার বিরুদ্ধে উচেছদ অভিযান পরিচালনা করেন।

 

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়াই উপজেলার সাতবাড়িয়া প্রধান সড়ক সংলগ্ন সুপার ব্রিক্স নামে ফারুক হোসেন ও বেগমপুর বাজার সংলগ্ন রিপন ব্রীক্স নামে আওয়ামী লীগ নেতা আবু বকর সিদ্দিক গং লোকালয় সংলগ্ন কৃষি জমির উপর প্রভাব খাঁটিয়ে ভাটা নির্মাণ করে অবাদে ইট পুড়িয়ে আসছিল।

 

এ অবৈধ ভাটা নির্মাণের প্রতিবাদে সচেতন এলাকাবাসি দীর্ঘদিন ধরে মানববন্ধনসহ বিভিন্ন দপ্তরে ভাটা বন্ধের দাবিতে অভিযোগ করে আসছিল। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ২০ ডিসেম্বর’ সকালে পরিবেশ অধিদপ্তরের (ঢাকা) এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রোজিনা আক্তার ও কেশবপুর উপজেলা সহকারী (ভুমি) কমিশনার ইরুফা সুলতানা ঐ দুই ভাটায় ভ্রাম্যমান অভিযান চালায়।

 

এসময় ভাটা মালিকদের কাছে পরিবেশ অধিদপ্তরের কোন অনুমোদন না থাকায় প্রথমে ফায়ার সার্ভিসের মাধ্যমে ভাটার আগুন নিভিয়ে দিয়ে পরে বুলডোজার দিয়ে ঐ অবৈধ ভাটা দুইটির ইট পুড়ানোর চিপনি গুড়িয়ে দেয়। এরপর ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ঐ ভাটা দুইটির সকল কার্যক্রম বন্ধ ঘোষনা করেন।

 

এসময় কেশবপুর থানা পুলিশের একটি টিম ও ভুমি অফিসের সহকারী মোঃ ফারুক হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এ বিষয়ে কেশবপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ইরুফা সুলতানা জানান, পর্যায়ক্রমে উপজেলার অনুমোদনহীন ভাটামালিকের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সংযুক্ত থাকুন