শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১
Logo
কোটচাঁদপুর পৌর নির্বাচনে শেষ মূহুর্তে প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

কোটচাঁদপুর পৌর নির্বাচনে শেষ মূহুর্তে প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

উদ্বেগ-উৎকন্ঠায় সাধারণ ভোটার

আসন্ন ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে শেষ মূহুর্তে প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত মেয়র প্রার্থীরা। পিছিয়ে নেয় সাধারণ ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থীরাও। মেয়র পদে প্রধান দুই রাজনৈতিক দলের প্রার্থী নৌকা ও ধানের শীষ প্রতীকের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

 

এছাড়াও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে লড়ছেন আ.লীগের দুই বিদ্রোহী প্রার্থী। নির্বাচন কমিশন তৃতীয় ধাপে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌর নির্বাচনের তফশীল ঘোষনা করেন। তফশীল অনুযায়ী আগামী ৩০ জানুয়ারী প্রথম শ্রেণীর এই পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রমতে পৌর নির্বাচনে ২৭ হাজার ৪’শ ৯৩ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। যার মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩ হাজার ৪’শ ৮৫ এবং মহিলা ভোটার ১৪ হাজার ৮ জন।

 

তৃতীয় ধাপের এই পৌরসভা নির্বাচনে গত ৩১ ডিসেম্বর ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে মেয়র পদে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীসহ ৪ মেয়র প্রার্থী মনোনয়ন ফরম জমা দেন। যার যাচাই-বাছাই হয় ৩ জানুয়ারি এবং ১০ জানুয়ারি ছিল মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন। আ’লীগের দলীয় মনোনীত নৌকার প্রার্থী উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাজান আলী। অন্যদিকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাবেক মেয়র ও পৌর বিএনপির আহ্বায়ক এস.কে.এম সালাহ্উদ্দীন বুলবুল সিডল ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

 

এছাড়াও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে আ.লীগের দুই বিদ্রোহী প্রার্থী পৌর আ.লীগের যুগ্ন-আহ্বায়ক শহীদুজ্জামান সেলিম মোবাইল ফোন প্রতিকে এবং বর্তমান মেয়র জাহিদুল ইসলাম জিরে নারিকেল গাছ প্রতিক নিয়ে মেয়র পদে লড়ছেন। এরই মধ্যে দলীয় ভাবে বিদ্রোহী দুই প্রার্থীকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। যার মধ্যে দলীয় কোন প্রকার পদ-পদবী ছাড়ায় বর্তমান মেয়র জাহিদুল ইসলাম জিরের নাম রয়েছে।

 

এছাড়াও পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৪ এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী হিসাবে ১২ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। শেষ মূহুর্তের দিকে প্রার্থীরা পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ড এবং পাড়া মহল্লার অলিগলিতে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন। করছেন গণসংযোগ, পথসভা সহ মোটর শোভাযাত্রা। এছাড়াও ভোটারদের মন গলাতে বিভিন্ন ধরনের প্রচারণা চালাচ্ছেন তারা।

 

অনেকে প্রচারণার মাধ্যম হিসাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক কে ব্যবহার করছেন। এরই মধ্যে বিছিন্ন দু’একটি সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। সরকার দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে দোকান ভাংচুর ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর এক কর্মীকে হাতুড়ী পেটার অভিযোগে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগীরা।

 

সাধারণ ভোটারদের মাঝে উদ্বেগ আর উৎকন্ঠা কেমন হবে আগামী ৩০ জানুয়ারীর নির্বাচন। এদিকে নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করেছে জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার ও জেলা রিটার্নিং অফিসার। যার সার্বিক সহযোগিতা করছেন উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা নির্বাচন অফিস এবং কোটচাঁদপুর থানা পুলিশ।

সংযুক্ত থাকুন