বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১
Logo
নওয়াপাড়ার ব্যবসায়ীর পাওনা টাকা নিয়ে প্রতারণা মামলা : চাঁপাইনবাবগঞ্জের ব্যবসায়ীর কারাদন্ড

নওয়াপাড়ার ব্যবসায়ীর পাওনা টাকা নিয়ে প্রতারণা মামলা : চাঁপাইনবাবগঞ্জের ব্যবসায়ীর কারাদন্ড

নওয়াপাড়ার এক ব্যবসায়ীর পাওনা টাকা নিয়ে টালবাহানা ও প্রতারণা প্রতারণা মামলায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের এক ব্যবসায়ীর দুই বছরের কারাদ- দিয়েছে যশোরের সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। বুধবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক গৌতম মল্লিক এ রায় ঘোষণা করেন।


দন্ড প্রাপ্ত আসামী চাঁপাইনবাবগঞ্জের মোস্তফা সুইট নামে এক ব্যবসায়ী। দুই বছরের সশ্রম কারাদন্ডের পাশাপাশি আরও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সাজাপ্রাপ্ত মোস্তফা সুইট বর্তমানে পলাতক রয়েছে।


সাজাপ্রাপ্ত মোস্তফা সুইট চাঁপাইনবাবগঞ্জের রাজশাহী সড়কের মেসার্স সাজ্জাদ আহমেদ এন্ড ফিলিং স্টেশনের মালিক।


মামলা সূত্রে জানা গেছে, নওয়াপাড়ার মেসার্স মাহিন এন্টারপ্রাইজ সার কীটনাশক ব্যবসায়ী। আসামি মোস্তফা সুইটের সাথে ব্যবসায়ীক সূত্রে পরিচয়। মাঝে মধ্যে তিনি নগদ ও বাকিতে এ প্রতিষ্ঠান থেকে মালামাল ক্রয় করিতেন। একপর্যায়ে আসামির কাছে প্রতিষ্ঠানে পাঁচ লাখ ৬৬ হাজার ৪৭৬ টাকা পাওনা হয়।


পাওনা এ টাকা পরিশোধের জন্য বারবার তাগাদা দেয়া হয় আসামি মোস্তফা সুইকে। এরপর ২০১৭ সালের ১২ মার্চ মোস্তফা সুইট পাওনা পরিশোধের জন্য তার ব্যাংক হিসাবের চার লাখ ৬৬ হাজার টাকার একটি চেক দেন।


চেকটি নগদায়নের জন্য সর্বশেষ ২০১৭ সালের ১৩ জুন ব্রাক ব্যাংকে জমা দিয়ে পর্যাপ্ত টাকা না থাকায় ডিজঅনার হয়। ২০১৮ সালের ২৩ জানুয়ারি প্রতারণার অভিযোগে আদালতে মামলা করেন ম্যানেজার সমিরন কুমার বিশ্বাস।

সংযুক্ত থাকুন