সোমবার, ২১ জুন ২০২১
Logo
ফকিরহাটে ওয়াসা'র পাইপে আটকে দিয়েছে ভৈরব নদী

ফকিরহাটে ওয়াসা'র পাইপে আটকে দিয়েছে ভৈরব নদী

 বাগেরহাটে ফকিরহাট উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে চলা ভৈরব নদীতে ওয়াসার বসানো অপরিকল্পিত পানির পাইপের কারণে থমকে গিয়েছে নদীর স্বাভাবিক গতিপথ, আটকে দিয়েছে নৌযান চলাচল, সৃষ্টি হচ্ছে নাব্যতা সংকট।

 

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, নতুন করে খনন করা ভৈরব নদীর পানির স্তরের সমান্তরাল আড়াআড়ি একটা বৃহদাকার পানির পাইপ। পাইপের কারণে আটকে আছে যাতায়াতকারী নৌকা। ওয়াসা খুলনা শহরে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের উদ্দেশ্যে মোল্লাহাটের মধুমতি নদী থেকে পানি নেওয়ার জন্য মোটা পাইপ বসিয়েছে।

 

উক্ত পানির পাইপটি বিশ্বরোড সংলগ্ন মধুমতী নদীর ব্রিজের নিচে থেকে স¤পূর্ন অগভীরভাবে বসানো রয়েছে। এ বিষয়ে স্থানীয়রা জানান, যখন ওয়াসা কর্তৃপ এই পানির পাইপটি এখানে অগভীরভাবে বসিয়েছিলো তখন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এই কাজে বাধা দিয়েছিলো। কিন্তু ওয়াসা কর্তৃপ এতে কর্ণপাত করেনি।

 

স্থানীয় অধিবাসী সজল আহমেদ বলেন, ওয়াসার খামখেয়ালি ও দায়সারাভাবে পাইপ বসানোর কারণে নদীতে ভাটীর সময়ে পাইপটি জেগে থাকে এবং নৌযান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। জোয়ারে সামান্য সময়ের জন্য বহু কষ্টে নৌকা চলাচল করে। কখনো আবার নৌকা আটকে যায়। এতে দুর্ঘটনার ঝুঁকি বাড়ছে।

 

এছাড়াও বৃহদাকার পাইপে পানির স্রোত বাধাগ্রস্থ হয়ে পলি জমছে। সৃষ্টি হচ্ছে নাব্যতা সংকট। এ বিষয়ে ভৈরব নদী খননের ঠিকাদারের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ওয়াসা কর্তৃপকে তারা একটি লিখিত চিঠির মাধ্যমে পাইপ সংক্রান্ত বিষয়টি অবহিত করেছেন। খুলনা বিভাগের ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আব্দুল্লাহ এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, "ঐ স্থানে নতুন করে মেরামতের জন্য যে সব উন্নত প্রযুক্তির যন্ত্রপাতির প্রয়োজন তা আমাদের কাছে নেই। যন্ত্রপাতিগুলো চীন হতে আসলে পাইপ লাইটি ঠিক করে নৌযান চলা চলের উপযোগী করা হবে।"

 

এদিকে, ফকিরহাটবাসীর দীর্ঘদিনের কাঙ্খিত ভৈরব নদী খনন হলেও পাইপের কারণে তার সুফল ভোগ করতে পারছেনা এলাকাবাসী। নদী পথে নৌযান চলাচল ও নাব্যতা ঠিক রাখতে উক্ত স্থান হতে ওয়াসার পানির পাইপটি দ্রুত সরাতে উর্ধ্বতন কর্তৃপরে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে এলাকাবাসী।

সংযুক্ত থাকুন