বুধবার, ১২ মে ২০২১
Logo
ভারতে সীমান্ত বন্ধ : ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণদের ছাড় : বেনাপোল দিয়ে ফিরলেন ২শ’৫০ জন বাংলাদেশী

ভারতে সীমান্ত বন্ধ : ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণদের ছাড় : বেনাপোল দিয়ে ফিরলেন ২শ’৫০ জন বাংলাদেশী

ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপকভাবে বেড়ে যাওয়ায় দেশটি থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের ক্ষেত্রে কঠোর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। তবে যাদের ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে, তারা ছাড়াপত্র নিয়ে দেশে আসতে পারবেন।


চলমান বিধিনিষেধের মেয়াদ আগামী ৫ মে পর্যন্ত বৃদ্ধি করে বুধবার জারি করা প্রজ্ঞাপনে এমন নির্দেশনা দেওয়া হয়। এতে বলা হয়, স্থল, নৌ ও বিমানযোগে যে কোনো ব্যক্তি ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের (পণ্য পরিবহন ব্যতীত) ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।


তবে শুধুমাত্র ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ বাংলাদেশিরা ভারতে অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশনের অনুমতি/অনাপত্তি ছাড়পত্র নিয়ে বিশেষ বিবেচনায় বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারবেন। তবে ভারতে থেকে বাংলাদেশে প্রবেশকারীদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন সংক্রান্ত বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর প্রণীত বিধিনিষেধ কঠোরভাবে অনুসরণের জনা স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, জননিরাপত্তা বিভাগ, সুরক্ষা সেবা বিভাগ, নৌ-পরিবহন মন্ধণালয় ও সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসকদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।


ভারতে করোনা প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় গত ২৫ এপ্রিল আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে ভারতের সঙ্গে সব স্থলসীমান্ত বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২৬ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে ৯ মে বিকেল ৬টা পর্যন্ত স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সাধারণ মানুষের চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ থাকবে বলে জানায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।


এদিকে ভারত-বাংলাদেশে আটকেপড়া পাসপোর্টধারী যাত্রীরা স্ব-স্ব দেশে অবস্থিত হাই কমিশনের বিশেষ অনুমতিপত্র পেয়ে যার যার দেশে ঢুকতে পারছে বেনাপোল বন্দর দিয়ে। সোমবার সন্ধ্যা থেকে বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত ভারতে আটকে পড়া ৪৩৯ বাংলাদেশি বেনাপোল স্থলপথে দেশে ফিরেছেন।

 

বাংলাদেশ থেকে ভারতে ফিরেছেন ৬৭ যাত্রী। তবে, আগত বাংলাদেশিদের মধ্যে তিনজন করোনা পজিটিভ রোগী রয়েছেন। বুধবার সকাল থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ২৪৯ জন বাংলাদেশি পাসপোর্টযাত্রী বেনাপোল ইমিগ্রেশন দিয়ে দেশে ফিরে এসেছেন।


হাই কমিশনের অনুমতিপত্র ছাড়াও তাদের সাথে করোনা নেগেটিভ সনদ আনতে হয়েছে। তবে, যারা এসেছেন তাদের বাধ্যতামূলক নিজখরচে ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে বেনাপোল স্থলবন্দর এলাকায়ই থাকতে হবে। নতুন করে পাসপোর্টযাত্রীদের ভারত ও বাংলাদেশ ভ্রমণ এখন পর্যন্ত বন্ধ রয়েছে।


এদিকে, আজ যে সকল পাসপোর্টযাত্রী ফেরত এসেছেন তাদের মধ্যে মেডিকেল পরীক্ষায় তিনজন করোনা পজেটিভ হয়েছেন। তাদের বিশেষ ব্যবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডের রেড জোনে স্থানান্তর করা হয়েছে। বিশেষ অনুমতিপত্র নিয়ে যারা ভারত থেকে দেশে ফিরে আসছেন, তাদের বন্দর এলাকার বেশ কয়টি আবাসিক হোটেলে রাখা হচ্ছে। পোর্ট ভিউ, রজনিগন্ধা, জুয়েল হোটেল, সিটি আবাসিক, চৌধুরী হোটেল, হোটেল অ্যারিস্টোকেট, সানসিটিসহ আরো বেশ কয়টি হোটেলে তাদের রাখা হচ্ছে। এমনকী পৌর কমিউনিটি সেন্টার, বিয়ে বাড়িসহ বেশ কিছু স্কুলেও রাখা হচ্ছে।

 

স্থান সংকুলান না হওয়াতে বাস ও মাইক্রোবাস এবং অ্যাম্বুলেন্সে লাউজানি এলাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। কোয়ারেন্টাইনে রাখা আগতদের পাসপোর্ট সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে রাখা হচ্ছে। কোয়ারেন্টাইন শেষে তাদের পাসপোর্ট ফেরত দেওয়া হবে।


কোয়ারেন্টাইনে তাদের দেখভাল ও নিরাপত্তার জন্য নিরাপত্তা কর্মীও নিয়োজিত রাখা হচ্ছে। সোমবার, মঙ্গলবার এবং বুধবার মিলে ৫ শতাধিক ভারত ফেরত পাসপোর্টযাত্রীকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। এদিকে, বাংলাদেশে আটকেপড়া অনেক ভারতীয় পাসপোর্টযাত্রী অনুরুপ কায়দায় ভারতে গেছেন।


চিকিৎসা শেষে হাতে খরচের টাকা না থাকায় ভারত ফেরত বাংলাদেশিরা নিজ খরচে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে অসহায় দিন পার করছেন বলে জানা গেছে। তবে সরকারি নির্দেশনা মানতে তাদের বাধ্য হয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হচ্ছে।


বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন স্বাস্থ্য বিভাগের মেডিকেল অফিসার আশরাফুজ্জামান বলেন, ভারত ফেরত বাংলাদেশিরা বেনাপোল বন্দর এলাকার সাতটি আবাসিক হোটেলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে আছেন। সেখানে সব খরচ যাত্রীদের বহন করতে হবে।


এছাড়া ফেরত আসা তিন বাংলাদেশি করোনা পজিটিভ যাত্রীকে যশোর জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের রেড জোনে রাখা হয়েছে। বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন ওসি আহসান হাবিব বলেন, বাংলাদেশি উপ-হাইকমিশনারের ছাড়পত্র থাকায় আটকে পড়া যাত্রীদের ৪৩৯ জন ভারত থেকে ফিরেছেন। ভারতীয় নাগরিক ফিরেছেন ৬৭ জন।

 

তবে, নিষেধাজ্ঞার পর থেকে বাংলাদেশি কোনো পাসপোর্টধারী যাত্রী নতুন করে ভারতে যায়নি এবং ভারত থেকেও ভারতীয় নাগরিক বাংলাদেশে আসেনি। শার্শা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাসনা শারমিন।

সংযুক্ত থাকুন