রবিবার, ১৩ জুন ২০২১
Logo
মাগুরাবাসীর স্বপ্নের রেললাইন নির্মাণকাজ শুরু, ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

মাগুরাবাসীর স্বপ্নের রেললাইন নির্মাণকাজ শুরু, ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

ফরিদপুরের মধুখালী থেকে কামারখালী হয়ে মাগুরা শহর পর্যন্ত নতুন রেললাইন নির্মাণকাজ প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথি হিসেবে এ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তিনি। এর মাধ্যমে মাগুরাবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন রেললাইন নির্মাণকাজ শুরু হলো। এর আগে ২৩ মে রেলওয়ের আওতাধীন মধুখালী থেকে মাগুরা পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণ কাজের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে এক হাজার ২০২ কোটি ৪৯ লাখ ৩৫ হাজার টাকা। সূত্র জানায়, মধুখালী থেকে কামারখালী হয়ে মাগুরা শহর পর্যন্ত ১৯ দশমিক ৯০ কিলেমিটার মেইন লাইন; কামারখালী ও মাগুরা স্টেশন ইয়ার্ডে ৪ দশমিক ৯ কিলোমিটার লুপ লাইন; দুটি নতুন স্টেশন (কামারখালী ও মাগুরা); দুটি নতুন স্টেশন প্লাটফর্ম (কামারখালী ও মাগুরা); দুটি নতুন প্লাটফর্ম শেড (কামারখালী ও মাগুরা); একটি আন্ডারপাস, দুটি মেজর সেতু; ১৬৮৩ মিটার ভায়াডাক্ট; ১৩০ একর ভূমি অধিগ্রহণ এবং ২৮টি মাইনর ব্রিজ ও কালভার্ট নির্মাণ করা প্রকল্পের নির্ধারিত কাজ। পাশাপাশি প্রকল্পের সিগন্যালিং ও ইলেকট্রিক্যাল কাজ হবে। এরমধ্যে মাগুরা জেলায় বিদ্যমান রেলওয়ে নেটওয়ার্কের ১৯ কিলোমিটার মেইন লাইন এবং ৪ দশমিক ৯০ কিলোমিটার লুপ লাইন এর সঙ্গে সংযুক্ত হবে। মাগুরায় নতুন রেলপথ স্থাপন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে মাগুরা সদর উপজেলার রামনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মধুখালী থেকে কামারখালী হয়ে মাগুরা লাইনটি কুষ্টিয়া মেহেরপুর হয়ে আসার ব্যবস্থা করতে হবে। মুজিবনগর সরকার গঠনের ঐতিহাসিক স্থানটিকেও আমরা রেলের আওতায় আনতে চাই। সারাদেশকে আমরা রেলের সেবার আওতায় আনতে চাই। পর্যায়ক্রমে নিয়ে আসবো। এ সময় ভারতের শিলিগুড়ি পর্যন্ত রেল যোগাযোগ স্থাপন করারও ইচ্ছে প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী। এ প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে মাগুরা জেলা বিদ্যমান রেলওয়ে নেটওয়ার্কের সঙ্গে সংযুক্ত হবে এবং রেলপথের মাধ্যমে উপ-আঞ্চলিক যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পাশাপাশি দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সঙ্গে বাস্তবায়নাধীন পদ্মাসেতুর মাধ্যমে রাজধানী ঢাকার সঙ্গে রেল সংযোগ স্থাপিত হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সংযুক্ত থাকুন