বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১
Logo
যশোরে ব্যবসায়ীকে অপহরণ পূর্বক দেড়লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায়ের অভিযোগে মামলা

যশোরে ব্যবসায়ীকে অপহরণ পূর্বক দেড়লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায়ের অভিযোগে মামলা

২০লাখ টাকা মুক্তিপনের দাবিতে বিল্লাল খাঁ নামে এক ব্যক্তিকে অপহরণ পূর্বক নগদ ও বিকাশের মাধ্যমে দেড়লাখ টাকা চাঁদা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে।

এঘটনায় বুধবার দিবাগত গভীর রাতে কোতয়ালি মডেল থানায় দুইজনের নাম উল্লে¬খসহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলাটি করেছেন অপহরণের শিকার যশোর শহরের রেলগেট পশ্চিমপাড়ার মৃত ইসমাইল খাঁর ছেলে বিল্লাল খাঁ।

 

আসামীরা হচ্ছে, শহরের রেলগেট পশ্চিমপাড়ার মৃত মোহাম্মদ সরদারের ছেলে আব্দুস সাত্তার ওরফে রবের ভাই সাত্তার ও ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার সারশাকান্দী গ্রামের আব্দুর রহমান খান (সালাম) এর ছেলে হাবিবুর রহমান ওরফে শাওনসহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪জন।

 

বিল্লাল খাঁ মামলায় বলেছেন, ইটবালি ব্যবসা সংক্রান্ত্রে পূর্ব হতে আসামীদের সাথে শত্রুতা চলে আসছিল। গত ১৫ মার্চ সকালে সে বাড়ি হতে শহরের রেলগেট পশ্চিম পাড়া গ্রামের আব্দুল গফফার এর চায়ের দোকানের সামনে পৌছালে উক্ত আসামীরা সাদা রংয়ের মাইক্রোবাসে পূর্বপরিকল্পিতভাবে সকাল সাড়ে ৬ টায় জোরপূর্বক তুলে দ্রুত নিয়ে যায়।

 

অপহরণের সময় দু’জনকে প্রত্যক্ষ করে এগিয়ে আসার পূর্বে দ্রুত মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। অপহরনের পর উক্ত সন্ত্রাসীরা বিল্লাল খাঁর কাছে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে।

 

এক পর্যায় বিল্লাল খাঁর ব্যবহৃত মোবাইল থেকে তার শ্যালক রবিউল ইসলাম ও মেয়ে লাবনী আক্তারের মোবাইল ফোনে ফোন করে সন্ত্রাসীরা মুক্তিপন ২০লাখ টাকা দাবি করে নগদের ৩টি ও বিকাশের একটি নাম্বার দেয়। টাকা না দিলে বিল্লাল খাঁকে হত্যার হুমকী দেয়।

 

রবিউল ইসলাম ও লাবনী আক্তার সন্ত্রাসীদের দেয়া নগদ ও বিকাশের একাউন্টে দেড়লাখ টাকা প্রদান করে। বাকী টাকা পাওয়ার আশায় বিল্লাল খাঁকে গোপালগঞ্জ শহরে মাইক্রোবাস থেকে নামিয়ে দেয়।

সংযুক্ত থাকুন