রবিবার, ১৩ জুন ২০২১
Logo
সম্পত্তি লিখে নিয়ে মাকে মারপিট : বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে কুলাঙ্গার ছেলে!

সম্পত্তি লিখে নিয়ে মাকে মারপিট : বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে কুলাঙ্গার ছেলে!

ডুমুরিয়ায় অসহায় মায়ের চোখের জলে ভারি হচ্ছে বাতাস

 

ডুমুরিয়ার পল্লীতে ছেলের বিরুদ্ধে মায়ের সম্পত্তি প্রতারণা মূলকভাবে রেজিস্ট্রি দলিল মূলে লিখে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সম্পত্তি ফিরে পেতে বৃদ্ধা আদালতের দারস্থ হওয়ায় ছেলের রোষানলে পড়ে মারপিটের শিকার হয়েছেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ভান্ডারপাড়া ইউনিয়নের উলা গ্রামে। এ ঘটনায় ভূক্তভোগী বৃদ্ধা ছবুরোন্নেছা বেগম রোববার ছেলে মোবারক আলী মল্লিকের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। লিখিত অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার উলা গ্রামের মৃত মোকছেদ আলী মল্লিকের স্ত্রী বৃদ্ধা ছবুরোন্নেছা (৭৫) একমাত্র ছেলে মোবারক আলীকে নিয়ে ভূমিহীন স্বামীর ভিটায় অসুস্থ্য শরীর নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দিনাতিপাত করে আসছিলেন। স্বামীর কোন সম্পত্তি না থাকলেও বৃদ্ধা তার পৈত্রিক সূত্রে তিন বিঘার মত সম্পত্তির মালিকানা লাভ করেছেন। বৃদ্ধার রয়েছে আরো দুইজন মেয়ে যারা অসহায় বিধবা এবং একই গ্রামের বাসিন্দা। এক পর্যায়ে সুচতুর মোবারক আলী তার বোনদের ফাঁকি দিতে সহজ সরল নিরক্ষর মা'কে প্রলোভন দেখিয়ে গত ৫/৬ মাস আগে সামান্য কিছু জমি তার নামে লিখে দেয়ার কথা বলে উলা ও তালতলা মৌজার তিন বিঘা জমির মধ্যে হতে দুই বিঘা প্রতারণামূলক ভাবে রেজিষ্ট্রি দলিল মূলে লিখে নিয়েছেন। বিষয়টি জানা জানি হলে বৃদ্ধা মা ও বোনেরা জমি ফিরিয়ে দিতে মোবারককে চাপ দিতে থাকে। তাতে তিনি রাজি না হয়ে বরং উল্টো মায়ের মালিকানাধীন আরো এক বিঘা জমি মোবারক লিখে দিতে মাকে চাপ দিতে থাকে। এক পর্যায়ে বৃদ্ধা তার জমি ফিরে পেতে খুলনার যুগ্ম জজ ২য় আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন যা বর্তমানে চলমান রয়েছে। বিষয়টি জানতে পেরে ছেলে মোবারক আলী তার মায়ের ভোরণ পোষণ বন্ধ করে দিয়ে তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেন। নিরুপায় হয়ে বৃদ্ধা তার অসহায় দুই বিধবা মেয়ের বাড়িতে উঠেছেন। রোববার সকালে বৃদ্ধা তার বিশেষ প্রয়োজনে ছেলের বাড়িতে আসলে ছেলে ক্ষিপ্ত হয়ে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করাসহ বৃদ্ধা মাকে মারপিট করে বাড়ি থেকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দেন। এ ঘটনায় বৃদ্ধা মেহেরুন্নেছা বেগম বাদী হয়ে ছেলে মোবারক আলীর বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সংযুক্ত থাকুন