বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১
Logo
সাতক্ষীরায় বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সম্পত্তি দখলের অভিযোগ

সাতক্ষীরায় বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সম্পত্তি দখলের অভিযোগ

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সম্পত্তি ভূমিদস্যু কর্তৃক অবৈধ ভাবে জবর দখলের প্রতিকারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

সোমবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে এ অভিযোগ করেন আশাশুনির শ্রীউলা গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: আলতাফ হোসেন।

 

লিখিত অভিযোগে তিনি বলেন, আমরা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলতাফ হোসেন, নজরুল ইসলাম টুকু, নূর মোহাম্মাদ সরদার ও শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা হুদা সরদারের শরিকের লোকজন।

 

আমাদের মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার হাড়িভাঙ্গা মৌজার ডিএম-৭ এম,এ ৩নং খতিয়ানে মালিক হওয়ার স্বত্ত্বেও স্বাধীনতা বিরোধী ভূমিদস্যু অজিয়ার গং আমাদের পৈত্রিক ১০.০৬ একর সম্পত্তি আত্মসাথের উদ্দেশ্যে জালিয়াতির মাধ্যমে ভূয়া সেল সার্টিফিকেট তৈরি করে জোরপূর্বক অবৈধভাবে জবর দখল করে।

 

উক্ত জাল সেল সার্টিফিকেটের বিরুদ্দে আমার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) সাতক্ষীরা আদালতে ৮/৯৭ নং মামলা দায়ের করি। ভূমি আপীল বোর্ড মামলা নং- ৫-১০৬/২০০৬।

 

হাইবিভাগের মামলা নং- ১২৪৭/২০১১। মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের মামলা নং-৪২০৮/১৭। সকল মামলার রায় ডিক্রি মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের অনুকুলে রয়েছে। কিন্তু এলাকার চিহ্নিত ভূমিদস্যুরা ডিক্রিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে উক্ত সম্পত্তি জবর দখল করে রেখেছে।

 

এছাড়া বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কেউ উক্ত সম্পত্তিতে গেলে বাহিনীর সদস্যরা খুন জখমসহ মিথ্যা মামলায় ফাসিয়ে হয়রানির হুমকি দিচ্ছে। বিগত ৩০ বছর অবৈধভাবে সর্বশান্ত নি:স্ব বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের লোকজন ঐ সম্পত্তি হতে বঞ্চিত।

 

উক্ত জাল সেল সার্টিফিকেটের বিরুদ্ধে মামলা করলেও উল্লেখিত ব্যক্তিরা জোরপূর্বক হাড়িভাঙ্গা বাজার সংলগ্ন মূল্যবান জমিতে পাকা দোকানঘর নির্মাণ করে বহাল তবিয়তে ভাড়া গ্রহণ ও জবর দখল করে আসছে।

 

পরিবার পরিজন নিয়ে আমরা অতিকষ্টে ওই ভূমিদস্যু বাহিনীর ভয়ে আতংকে দিনাতিপাত করছি। যে কোন মুহুর্তে ওই বাহিনী আমাদের উপর হামলার করে ক্ষয়ক্ষতি করতে পারে। তাদের ভয়ে আমরা স্বাভাবিক ভাবে চলাফেরা করতেও পারি না।

 

আমরা ওই ভূমিদস্যু বাহিনীর কবল থেকে পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। সাংবাদিক সম্মেলনে পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংযুক্ত থাকুন